২০২১-২০২২ কানাডায় স্কলারশিপে পড়ার সুযোগ; আগামী ৩ বছরে কানাডা সরকার ১২ লাখ অভিবাসী নিবে

শ্রমবাজারের ঘাটতি পূরণ ও অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে আগামী ৩ বছরে কানাডা সরকার ১২ লাখ অভিবাসী নিবে




শ্রমবাজারের ঘাটতি পূরণ ও অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে আগামী ৩ বছরে কানাডা সরকার ১২ লাখ অভিবাসী নিবে
স্কলারশিপ নিয়ে কানাডায় উচ্চশিক্ষা; শ্রমবাজারের ঘাটতি পূরণ ও অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে আগামী ৩ বছরে কানাডা সরকার ১২ লাখ অভিবাসী নিবে

বাংলাদেশের শিক্ষার্থীরা বিশ্বের বিভিন্ন দেশে উচ্চতর শিক্ষা নেয়ার জন্য বেশ আগ্রহী। সাফল্যে অবদানও রাখছে তারা। স্কলারশিপ নিয়ে বাইরের দেশে পড়তে যাওয়ার জন্য কানাডা আছে প্রথম সারিতে। এইচএসসি ও অনার্স পাস করেই অনেক শিক্ষার্থী কানাডার বিভিন্ন কলেজগুলোতে আবেদন করে থাকেন। গত আট থেকে ১০ বছর ধরে বাংলাদেশি ছাত্রছাত্রীরা কানাডার বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে উচ্চশিক্ষা গ্রহণে পাড়ি জমাচ্ছে।

তবে অনেকেই জানেন না, কীভাবে আবেদন করতে হয় কিংবা কীভাবে একটি ভালো স্কলারশিপ পাওয়া যায়। আজ জেনে নিন কীভাবে সহজে আপনি কানাডায় স্কলারশিপ পেতে পারেন। কীভাবে আবেদন করবেন তাও জেনে নিন-

কানাডার নামকরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর ডিগ্রিসমূহ বিশ্বমানের তো বটেই, আমেরিকা এবং কমনওয়েলথভুক্ত অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রিরও সমতুল্য। তাছাড়া পড়াশোনা চলাকালীন কানাডার নাগরিকত্বও পাওয়ার সুযোগ রয়েছে। কানাডায় একজন শিক্ষার্থী ইচ্ছা করলে দুইভাবে পড়ালেখা করতে পারে।

ফুলটাইম অথবা পার্টটাইম পড়াশোনায় এখানে রয়েছে আন্ডার গ্র্যাজুয়েট, পোস্ট গ্র্যাজুয়েট, ডক্টরাল, পিএইচডি কোর্স। এখানকার বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে আরো রয়েছে কো-অপারেটিভ এডুকেশন, ডিসট্যান্ট লার্নিং, কন্টিনিউয়িং এডুকেশন এবং স্টুডেন্ট এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রামের মতো আরো অনেক কোর্স ও পদ্ধতি। এখানে শিক্ষার দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য ওয়ার্কশপ ও কাউন্সেলিং ব্যবস্থা রয়েছে এবং আর্থিক সহযোগিতার জন্য বিভিন্ন স্কলারশিপ দেয়া হয়ে থাকে।

বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের এক্সচেঞ্জ স্কলারশিপে কানাডায় পড়ার সুযোগ

কানাডার একাডেমিক বছর সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয়ে মে মাসে শেষ হয়। বছরে দুটি সেমিস্টার থাকে। সেপ্টেম্বর অথবা জানুয়ারি। তবে  সেমিস্টারে ভর্তির জন্য আবেদন প্রক্রিয়া আট মাস আগে শুরু করা ভালো। সব বিশ্ববিদ্যালয়েরই ওয়েব সাইড রয়েছে। সেখানে গিয়ে আপনি আবেদন করতে পারবেন। স্কলারশিপ আবেদনের সময়সূচি ও যোগ্যতাসমূহ জানতে আপনাকে তাদের ওয়েবসাইটসমূহ ভিজিট করতে হবে। প্রতি বছর ১৭৭ জনকে বৃত্তি প্রদান করা হয়। এছাড়াও বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির পর আপনি অনেক ধরনের বৃত্তির সুযোগ পাবেন। আপনার যোগ্যতা অনুযায়ী ১৬ থেকে ৫০ ডলার পর্যন্ত বৃত্তি পেতে পারেন। সঙ্গে ফ্রি রিচার্সের সুবিধা।

এই বৃত্তির আবেদনের প্রক্রিয়া শুরু করতে আপনাকে অবশ্যই একটি কানাডিয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ের ডক্টরাল প্রোগ্রামে ভর্তি হতে হবে। তিন বছরের অধ্যয়নের জন্য এই বৃত্তির মূল্য প্রতি বছর ৫০ হাজার ডলার হয়। প্রতি বছর ছয়জন নতুন ছাত্রকে পুরষ্কার দেয়া হয়। প্রাপকদের অবশ্যই আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থী হতে হবে। যাদের বৈধ কানাডিয়ান স্টাড পারমিট রয়েছে এবং পিএইচডি পর্যায়ে পূর্ণকালীন স্নাতক পড়াশোনা করার ইচ্ছা পোষণ করতে হবে।

কানাডায় আপনি যে বিষয়গুলোতে পড়তে পারবেন- 

কম্পিউটার সায়েন্স, বায়োলজি, ফিজিক্স, কেমিস্ট্রি, ফুড সায়েন্স, কনস্ট্রাকশন অ্যান্ড রিসোর্সেস, ইলেকট্রনিক্স, মেডিক্যাল সায়েন্স অ্যান্ড সার্ভিসেস, মেরিন অ্যাফেয়ার্স, এগ্রিকালচার, ইকোনোমিক্স, অ্যাপ্লায়েড কম্পিউটার সায়েন্স, ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট, অ্যারোস্পেস ইঞ্জিনিয়ারিং, অ্যাসট্রোনমি, অ্যাপ্লায়েড জিওগ্রাফি, আর্কিটেকচারাল সায়েন্স, সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং, কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল হেলথ, বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন, এডুকেশন, হোম ইকোনোমিক্স, মিউজিক, ফিলোসফি, হিস্ট্রি অ্যান্ড রিলিজিওন, ইংলিশ, ল, থিয়েটারসহ আন্ডার গ্র্যাজুয়েট পর্যায়ে প্রায় ১০ হাজার বিষয় এবং পোস্ট গ্র্যাজুয়েট পর্যায়ে প্রায় তিন হাজার বিষয় পড়তে পারবেন।

স্কলারশিপের জন্য আপনার যোগ্যতা
> একাডেমিক এক্সিলেন্স (৮০% মার্কস) থাকতে হবে।
> রিসার্চ এবিলিটি (জার্নাল পাবলিকেশন) থাকতে হবে।
> ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ প্রফিসিয়েন্সি (স্কোর সাত দশমিক পাঁচ) থাকতে হবে। আইএলটিএস করতে হবে আপনাকে।
> কমিউনিকেশন ও লিডারশিপ দক্ষতা থাকতে হবে।
> গবেষণা ও প্রকৌশল দক্ষতা, প্রাকৃতিক বিজ্ঞান, মানবিকতা, সামাজিক বিজ্ঞান বা স্বাস্থ্য বিজ্ঞানের ধারণা থাকতে হবে।

কানাডায় স্কলারশিপসমূহ 

গভর্নমেন্ট অব কানাডা ইন্টারন্যাশনাল স্কলারশিপ প্রোগ্রাম: এই স্কলারশিপ মূলত গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্স কানাডা প্রদান করে থাকে। যা কানাডা সরকার কর্তৃক প্রদান করা হয়ে থাকে।

ভ্যানিয়ার কানাডা গ্রাজুয়েট স্কলারশিপ প্রোগ্রাম: স্কলারশিপটি মূলত পিএইচডি স্টুডেন্টদের জন্য। প্রোগ্রামটি ৩ বছরের জন্য। প্রতি বছরের জন্য ৫০ হাজার ডলার প্রদান করা হয়ে থাকে।

কুইবেক গভর্নমেন্ট স্কলারশিপ অ্যান্ড গ্রান্টস: এটি প্রধানত পোস্ট ডক্টোরিয়াল ফলোশিদের জন্য। এটি অনেক সময় শর্টটাম রিসার্চ ও প্রফেশনাল ডেভেলপমেন্ট এর জন্য প্রদান করা হয়।

পিয়ারি এলিয়ট ট্রুডো ফাউন্ডেশন ডক্টোরিয়াল স্কলারশিপ: প্রতি বছর ১৫ জন আউস্টান্ডিং ডক্টরাল প্রার্থীকে দেয়া হয়। প্রতি বছর ৬০ হাজার ডলার প্রদান করা হয়। এই প্রোগ্রামটি ৪ বছরের জন্য হয়ে থাকে।

কানাডিয়ান কুইন এলিজাবেথ-২ ডায়মন্ড জুবিলী স্কলারশিপ: স্কলারশিপটি মূলত ইনোভেশন লিডার ও কমিউনিটি বিল্ডারদের দেয়া হয়। যারা কমনওয়েলথভুক্ত দেশ; তারাই শুধু মাস্টার্স ও ডক্টোরিয়াল প্রসূনের জন্য আবেদন করতে পারবে।

এগুলো ছাড়াও রয়েছে 
অন্টারিও গ্রাজুয়েট স্কলারশিপ
অন্টারিও ট্রিলিয়াম স্কলারশিপ
ইউনিভার্সিটি অব ওয়াটার লু ইন্টান্যাশনাল মাস্টার্স অ্যান্ড ডক্টোরিয়াল অ্যাওয়ার্ডস
ইউনিভার্সিটি অব ম্যানিটোবা গ্রাজুয়েট ফেলোশিপস
ইউনিভার্সিটি অব ক্যালগ্যারি গ্রাজুয়েট অ্যাওয়ার্ডস
ইউবিসি গ্রাজুয়েট গ্লোবাল লিডারশিপ ফেলোশিপস
বান্টিং পোস্ট ডক্টরাল ফেলোশিপস
কানাডা গ্রাজুয়েট স্কলারশিপ মাস্টার্স প্রোগ্রাম
কার্লিটোন ইউনিভার্সিটি অ্যাওয়ার্ডস ফর ইন্টারন্যাশনাল স্টুডেন্টস
ডালহাউস ইউনিভার্সিটি স্কলারশিপ
ফেয়ারলেগ ড্যাকিন্সন স্কলারশিপ ফর ইন্টারন্যাশনাল স্টুডেন্টস
ম্যাকগেইল ইউনিভার্সিটি স্কলারশিপ
কুইন ইউনিভার্সিটি ইন্টারন্যাশনাল স্কলারশিপ
ইউনিভার্সিটি অব সাচকাচুয়ান ইন্টারন্যাশনাল স্টুডেন্ট অ্যাওয়ার্ডস
সাইমন ফ্রেসার ইউনিভার্সিটি ফিন্যান্সিয়াল এইড অ্যান্ড অ্যাওয়ার্ডস
ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটি ইন্টারন্যাশনাল অ্যাডমিশন স্কলারশিপ

বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের এক্সচেঞ্জ স্কলারশিপে কানাডায় পড়ার সুযোগ:

বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের এক্সচেঞ্জ স্কলারশিপে কানাডায় পড়ার সুযোগ

বেশ অসাধারণ একটা খবর পেলাম বাংলাদেশের কানাডিয়ান দূতাবাসের ফেসবুক পেজ থেকে। দেশের বাইরে পড়ার সময় দেখতাম, প্রায়ই বিশ্ববিদ্যালয়ে অন্য দেশ থেকে এক সেমিস্টারের জন্য স্কলারশিপ নিয়ে স্টুডেন্ট আসছে পড়ার জন্য। তাঁদের সঙ্গে কথা বলে জানতে পারি, তাঁরা ‘এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রামের স্টুডেন্ট’। আফসোস হতো যে বাংলাদেশের জন্য এমন এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রাম যদি কানাডাও চালু করত।
এখন কানাডা সরকার বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য নতুন বছরে অনেকটা উপহারস্বরূপ যেন ‘এডুকানাডা স্টাডি ইন স্কলারশিপ’–এ এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রামটি চালু করল। বাংলাদেশের প্রতি তাদের এই বন্ধুসুলভ আচরণের জন্য সবার আগে কানাডা সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই। ২০২১ সাল থেকে প্রতিবছর বাংলাদেশিদের এখন থেকে স্কলারশিপটি দেওয়া হবে।

স্কলারশিপটি কেমন

স্কলারশিপটি দেওয়া হয় কানাডা সরকারের গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্স কানাডার আনুষ্ঠানিক সংস্থা ডিপার্টমেন্ট অব ফরেন অ্যাফেয়ার্স, ট্রেড অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (ডিএফএটিডি) থেকে উন্নয়নশীল কয়েকটি দেশের আন্ডারগ্র্যাজুয়েট ও মাস্টার্স অধ্যয়নরত ছাত্রছাত্রীদের জন্য, যেন তাঁরা এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রামে ফুল ফিন্যান্সিয়াল সাপোর্ট নিয়ে কানাডার বিশ্ববিদ্যালয়গুলোয় পড়তে আসতে পারেন। এই দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশকেও এই বছর থেকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এশিয়া থেকে আছে মাত্র তিনটি দেশ—বাংলাদেশ, নেপাল, তাইওয়ান।

কারা আবেদন করতে পারবেন

বর্তমানে বাংলাদেশে কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্ডারগ্র্যাজুয়েট কিংবা মাস্টার্সে পড়াশোনা করছেন, এমন যে কেউ আবেদন করতে পারবেন। বিশেষত আন্ডারগ্র্যাজুয়েট যাঁরা পড়ছেন, এটা তাঁদের জন্য সত্যিই একটা বড় সুযোগ বলে আমি মনে করি। থিওরিটিক্যালি বাংলাদেশে পিএইচডি অধ্যয়নরত যে কেউ এখানে আবেদন করতে পারেন। কিন্তু যেহেতু অধিকাংশ বাংলাদেশি আন্ডারগ্র্যাজুয়েট ও মাস্টার্সে অধ্যয়নরত, তাই আমার নিবন্ধটি শুধু তাঁদের ওপর ফোকাস করে লেখা।
বৃত্তি কত দিনের
চার মাস বা এক সেমিস্টারের জন্য স্কলারশিপটি দেওয়া হবে। এই একটা সেমিস্টার আপনি কানাডায় এসে কোনো একটা নির্দিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয়ে কোর্সওয়ার্ক বা রিসার্চ ওয়ার্ক ইত্যাদি সম্পন্ন করবেন। এর যাবতীয় খরচ কানাডা সরকার বহন করবে।

এ স্কলারশিপে কী কী সুবিধা

যাঁরা এই বৃত্তির জন্য মনোনীত হবেন, তাঁরা ১০ হাজার ২০০ কানাডিয়ান ডলার পাবেন ৪ মাসের জন্য। বাংলদেশি টাকায় সাড়ে ৬ লাখের বেশি (১ কানাডিয়ান ডলার সমান ৬৬ টাকা ৯৩ পয়সা)। পুরোটা ট্যাক্স ফ্রি! ছয় মাসের রিসার্চের জন্য যে মাস্টার্সের শিক্ষার্থীরা আসবেন, তাঁরা ১২ হাজার ৭০০ কানাডিয়ান ডলার পাবেন (প্রায় সাড়ে ৮ লাখ টাকা)। স্কলারশিপটির স্কিম অনুযায়ী শিক্ষার্থীর কোনো টিউশন ফি থাকবে না কানাডাতে এই এক সেমিস্টার পড়ার জন্য। তাই এই টাকা দিয়ে মূলত ভিসা ফি, আসা–যাওয়ার প্লেনের টিকিট, থাকার খরচ, হেলথ ইনস্যুরেন্সসহ আনুষঙ্গিক সব খরচ বহন করা হবে। অর্থাৎ শিক্ষার্থীকে এক পয়সাও ব্যয় করতে হবে না। এ তো গেল ফিন্যান্সিয়াল সুবিধা। আর এখানে কানাডায় এসে ইন্টারন্যাশনাল নেটওয়ার্কিং, প্রফেসরদের সঙ্গে রিসার্চ করার অভিজ্ঞতা, ক্লাস করার অভিজ্ঞতা তো থাকছেই।

বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের এক্সচেঞ্জ স্কলারশিপে কানাডায় পড়ার সুযোগ

আবেদন কীভাবে করতে হবে

আবেদন নিজে নিজে সাবমিট করা যাবে না, করতে হবে বাংলদেশের নিজ নিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের মাধ্যমে। নিজেদের বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিপার্টমেন্টাল হেড বা ডিনকে গিয়ে বলতে হবে এই স্কলারশিপের কথা। তিনি নাম–পরিচয় উল্লেখ করে যাবতীয় ডকুমেন্টসহ অনলাইনে আবেদন জমা দেবেন কানাডায় যে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে শিক্ষার্থীর আসতে চান এই স্কলারশিপের অধীনে, সেই বিশ্ববিদ্যালয়ে। অনলাইনে আবেদনপত্র জমা দেওয়ার জন্য ডিএফএটিডির অনলাইন পোর্টালে মোমেন্টাম অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে (https://bit.ly/2HCbLg1)। আবেদন অনলাইনে সাবমিট করলে সেটা পাওয়ার পরে কানাডার সেই বিশ্ববিদ্যালয় ডিএফএটিডি প্রার্থীর জন্য ফাইনাল আবেদন সাবমিট করবে। এই হলো ধাপগুলো।
কানাডার কোন কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন করা যাবে
ডেজিগনেটেড লার্নিং ইনস্টিটিউট (ডিএলআই) যুক্ত যেকোনো কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি। ডিএলআই বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকা দেখার জন্য কানাডা সরকারের অফিশিয়াল www.canada.ca ওয়েবসাইটে ঢুঁ মারতে হবে।

কী কী ডকুমেন্ট প্রয়োজন

নিচের ডকুমেন্টগুলো পিডিএফ বা ইমেইজ ফাইল আকারে অনলাইনে আপলোড করতে হবে। খেয়াল রাখা দরকার যে প্রতিটি ডকুমেন্টের সাইজ যেন পাঁচ মেগাবাইটের কম হয়। না হলে অনলাইনে আপলোড করতে পারবেন না। ডকুমেন্ট লিস্ট—
১. প্রুফ অব সিটিজেনশিপ: পাসপোর্ট/বার্থ সার্টিফিকেট হলেই হবে।
২. প্রুফ অব ফুলটাইম এনরোলমেন্ট: নিজ নিজ ইউনিভার্সিটির ডিপার্টমেন্ট থেকে এটা লেটারহেডে নিতে হবে।
৩. লেটার অব ইনটেন্ট: এখানে প্রার্থীকে লিখতে হবে, স্কলারশিপের মোটিভেশন লেটারের মতো করে।
৪. নেটার অব সাপোর্ট ফ্রম দ্য হোম ইনস্টিটিউশন: ডিপার্টমেন্টাল হেড বা ডিন প্রাতিষ্ঠানিক লেটার হেডে প্রার্থীর নামসহ উল্লেখ করবেন।
৫. লেটার অব ইনভাইটেশন ফ্রম দ্য কানাডিয়ান সুপারভাইজার: এটা শুধু যাঁরা মাস্টার্সে পড়ছেন এবং এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রামে কোনো কানাডিয়ান প্রফেসরের ল্যাবে রিসার্চ করতে আসতে চান, তাঁদের আপলোড করতে হবে। আন্ডারগ্র্যাজুয়েট যাঁরা কোর্সওয়ার্ক করতে আসতে চান, তাঁদের এটার দরকার নেই। কিন্তু আন্ডারগ্র্যাজুয়েট স্টুডেন্ট, যাঁরা রিসার্চ করতে আসতে চান, তাঁদের আবার লাগবে এটা। ওই কানাডার ইউনিভার্সিটির কোনো একজন সুপারভাইজার, যিনি কিনা প্রাতিষ্ঠানিক লেটারহেডে লিখবেন যে তিনি আপনাকে চার মাস মেন্টরশিপ করতে রাজি আছেন, এমন একটা প্রত্যয়নপত্র জমা দিতে হবে।
৬. সাইনড কপি অব মেমোরেন্ডাম অব আন্ডারস্ট্যান্ডিং (এমওইউ): আবেদনকারী প্রার্থীর বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভাগীয় প্রধান বা ডিন কানাডার যে বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী পড়তে আসতে চান, তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ করলেই তারা এমওইউ ফরম্যাট জানিয়ে দেবে। সেখানে দুই বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিপার্টমেন্টের ডিন বা হেডের স্বাক্ষর থাকবে আর বলা থাকবে যে বাংলদেশ থেকে ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী হিসেবে আপনাকে এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রামে কানাডায় পাঠানো হচ্ছে। কী উদ্দেশ্যে বা কী করবেন, সেখানে এসব লেখা থাকবে। আরও কিছু গুরুত্বপূর্ণ শর্তাবলির উল্লেখ থাকতে হবে, যেমন কানাডায় থাকার সময় ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের ফুল টিউশন ফি মওকুফ করার বিষয়টির অবশ্যই উল্লেখ থাকবে। মোট কথা এমওইউ, এটা কানাডার ও আপনার বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে একটা পারস্পরিক বোঝাপড়াসহ কিছু শর্তযুক্ত একটা চুক্তির মতো।

শ্রমবাজারের ঘাটতি পূরণ ও অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে আগামী ৩ বছরে কানাডা সরকার ১২ লাখ অভিবাসী নিবে

অন্তর্জাল

শ্রমবাজারের ঘাটতি পূরণ ও অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে আগামী ৩ বছরে কানাডা সরকার ১২ লাখ অভিবাসী নিবে

মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে শ্রমবাজারের ঘাটতি পূরণ এবং অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে আগামী তিন বছরে ১২ লাখেরও বেশি অভিবাসী গ্রহণের পরিকল্পনা করেছে কানাডা সরকার। শুক্রবার (৩০ অক্টোবর) আল-জাজিরার একটি প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, […]

Do you want to come to Canada; for study, work, visit or live permanently in Canada?

Do you want to come to Canada; for study, work, visit or live permanently in Canada?

Do you want to come to Canada, or extend your stay? COVID-19: Safety measures Find out if you’re affected by the coronavirus (COVID-19)Need help? Find out if you are eligible to apply Do you want […]

 

USA Green Card-DV Lottery Program 2023

US Green Card-DV Lottery Program 2023 -Application Deadline: Oct. 15th, 2021!

US Green Card-DV Lottery Program Only until October 15th, 2021, you can apply for the official DV Lottery 2023! What is the DV Lottery? The Diversity Visa Program (DV Lottery) is congressionally-mandated and allows up to […]




Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*